‘কলকাতায় টাকা ওড়ে’ – প্রবাদ সত্যি করে শহরের বুকে উড়ল লাখ লাখ টাকার নোট

বুধবার কলকাতা শহর দেখল নোট বৃষ্টি। এই সময়ে রাস্তায় থাকা মানুষ যে যতটা সম্ভব নোট কুড়িয়েছেন। 100 টাকা থেকে 2000 টাকার নোট প্রজাপতির মত শহরের রাস্তায় উড়তে থাকে। আসলে, একটি সংস্থায় রেভিনিউ ইন্টেলিজেন্সের দল অভিযান চালিয়েছিল। অভিযান এড়াতে সংস্থার কর্মীরা অফিসের জানালা থেকে টাকার নোট গুলো রাস্তায় ফেলে দেয়। এই সংস্থার অফিসটি পঞ্চম তলায় ছিল, যার ফলে নিক্ষেপ করা টাকা রাস্তায় বহু দূর পর্যন্ত ছড়িয়ে ছিটিয়ে ছিল। টাকা কুড়ানোর কারণে রাস্তায় জ্যাম হয়ে যায়।

রাজস্ব গোয়েন্দা অধিদপ্তরকে জানানো হয়েছিল যে কোনও সংস্থায় অর্থের অবৈধ লেনদেন চলছে। এই সংস্থাটি ছিল এমকে পয়েন্ট। এই সংস্থাটি কলকাতার বেন্টিক স্ট্রিটে একটি বাণিজ্যিক ভবনে অবস্থিত। এই বিল্ডিংয়ের পঞ্চম তলায় এই রফতানি-আমদানি সংস্থার একটি অফিস রয়েছে। গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, বুধবার রাজস্ব গোয়েন্দা বিভাগের কর্মকর্তারা এখানে অভিযান চালান। এমকে পয়েন্টের কর্মচারিরা বিষয়টি জানতে পারার সাথে সাথে তারা সংস্থায় রাখা নোটগুলি বাথরুমের জানালার বাইরে ফেলে দিতে শুরু করে।

সংস্থার অফিসে সব ধরণের নোট ছিল। তথ্য মতে, এই নোটগুলিতে 100 টাকা, 200 টাকা, 500 টাকা এবং 2 হাজার টাকার নোট অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। এই বিল্ডিং থেকে নোট উড়ছে দেখে যাত্রীরা এই নোটগুলি কুড়াতে করতে শুরু করে। তথ্য মতে, সংস্থার কর্মীরা প্রায় 4 লক্ষ টাকা নীচে ফেলে দেয়। কিছুক্ষণ পরে পুলিশ সেখানে পৌঁছায়, তবে ততক্ষণে অনেক মানুষ সে টাকা কুড়িয়ে নিয়েছে।

অর্থ পাচারের সন্দেহে অভিযুক্ত
তথ্য মতে, এই অভিযানটি অর্থ পাচারের সন্দেহের ভিত্তিতে করা হয়েছিল। বর্তমানে সংস্থায় উপস্থিত সকল কর্মচারীকে হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। এখন কর্তৃপক্ষ সংস্থাটির মালিকের সন্ধান করছে।