পতি হয়েও কেন পত্নীর পায়ের নিচে স্থান পেলেন মহাদেব, জানুন মা কালীর মূর্তি রহস্য

আর কদিন পরে কালীপুজো। বাঙালি মেতে উঠবে তাদের দীপান্বিতা কালী পূজা উৎসব পালনে। আনন্দের আর খুশির জোয়ারে ভাসবে সবাই। ঘরে ঘরে দীপাবলীর আলো, আমাবস্যার অন্ধকার রাত আলোয় ভাসিয়ে দিয়ে পূজিত হবেন মা কালী। কিন্তু এ সময় শুধু মা কালীর একার পূজা হয়না, মায়ের সঙ্গে তার পায়ের নিচে শায়িত থাকেন মহাদেব। মহাদেব মা কালীর স্বামী, কিন্তু তার স্থান মায়ের পায়ের নিচে কেন? আসুন আজ জানি সেই কাহিনী।

প্রাচীনকালের দেবতা আর অসুরদের যুদ্ধের সময় দেবতারা যখন পরাস্ত হন তখন মহাদেবের পরামর্শে দেবতারা আদ্যা শক্তি মা কালীর শরণাপন্ন হন। মা কালীর মূর্তি দেখে অসুরেরা প্রচন্ড ভীত হয়। তার রণরঙ্গিনী রূপ ভেঙে চুরমার করে দেয় অসুরদের দর্প। একের পর এক অসুর নিধন করে মা কালী উন্মত্ত হলেন। অসুরদের কাটা মুণ্ড নিয়ে তিনি উল্লাস শুরু করলেন। তাকে কিছুতে শান্ত করা যাচ্ছিল না। দেবতারা তখন কোনো উপায় না দেখে মহাদেবের স্তব করতে লাগলেন। মহাদেব তখন তাদের দুশ্চিন্তা না করে দেবীর স্তব করতে বললেন। এবং মহাদেব নিজে গিয়ে দেবীর পথে র সামনে শায়িত হলেন। দেবী ছুটে এসে নৃত্যের মোহে মহাদেবের গায়ে পা রাখলেন। তৎক্ষণাৎ তিনি নিচে তাকিয়ে তার পতি পরমেশ্বর কে দেখতে পেলেন এবং সম্বিত ফিরে পেলেন। লজ্জায় তিনি দাঁত দিয়ে নিজের জিভ কাটলেন।

এই পৌরাণিক কাহিনীর আধারেই দেবী মূর্তি তৈরি হয়। এবং এজন্যই আমরা মা কালীর মূর্তি তে দেখতে পাই যে মহাদেব মায়ের পায়ের নিচে শুয়ে আছেন।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*